চাটখিল থেকে অপহরনের শিকার প্রবাসীর স্ত্রী ঢাকার লালবাগ থেকে উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার :: চাটখিল থেকে অপহরণের শিকার এক প্রবাসীর স্ত্রী ও সন্তানকে অপহরণের তিনদিন পর ঢাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার দিবাগত রাতে ঢাকার লালবাগ থানা পুলিশের সহায়তায় লালবাগ কেল্লা এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। শনিবার ভোরে তাদের চাটখিল নেয় পুলিশ। এ সময় অপহরণকারী শাহাদাত হোসেন সাদ্দামকে (২৬) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় অপহরণের শিকার গৃহবধূর বাবা মোহাম্মদ উল্যাহ বাদী হয়ে চাটখিল থানায় মামলা করেছেন।

গ্রেপ্তার সাদ্দাম লক্ষীপুরের চন্দ্রগঞ্জ থানার চরশাহী ইউনিয়নের খাগোরিয়া গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, চাটখিল উপজেলার শিংবাহুড়া গ্রামের সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী (২৫) তার শিশু সন্তান নিয়ে কিছুদিন আগে বাবার বাড়ি একই উপজেলার রামনারায়ণপুর ইউনিয়নের গোমাতলি গ্রামে বেড়াতে যান। বুধবার সকালে ওই গৃহবধূ রিকশাযোগে বাবার বাড়ি থেকে স্বামীর বাড়ি আসার পথে সাদ্দাম ও তার সহযোগীরা প্রবাসীর স্ত্রীর পথ রোধ করে একটি প্রাইভেটকারযোগে ঢাকা নিয়ে যান। এ ঘটনায় গৃহবধূর বাবা বুধবার বিকেলে চাটখিল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

তদন্তকারীর কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক জসিমউদ্দিন জানান, মুঠোফোনের প্রযুক্তি ব্যবহার করে নিখোঁজ নারীর অবস্থান সর্ম্পকে নিশ্চিত হয়ে ঢাকার লালবাগ কেল্লা এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এসময় প্রবাসীর স্ত্রী ও তার শিশু সন্তানকে উদ্ধার করে এবং অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করে শনিবার ভোরে চাটখিল থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তারকৃত সাদ্দাম অপহরণের কথা স্বীকার করেছেন।

চাটখিল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. দুলাল মিয়া বলেন, প্রবাসীর স্ত্রী তার বাবার বাড়িতে গিয়ে স্বামীর বাড়িতে আসা-যাওয়ার পথে অপহরণকারী যুবক তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিত। কিন্তু প্রবাসীর স্ত্রী প্রেম প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলে সে ক্ষিপ্ত হয়ে অপহরণের ঘটান ঘটায়।

তিনি বলেন, উদ্ধার হওয়া প্রবাসীর স্ত্রীকে মেডিকেল পরীক্ষা ও ২২ ধারায় জবানবন্দির জন্য নোয়াখালী জেলা সদরে পাঠানো হয়েছে। গ্রেপ্তার যুবককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Developed by : M. Masud Alam