চাটখিলে সৎ মায়ের হাতে ১১ বছরের শিশু হত্যার অভিযোগ, সৎ মা আটক

স্টাফ রির্পোটারঃ চাটখিল পৌরসভার সুন্দরপুর গ্রামের মল্লিক বাড়ীর ইতালী প্রবাসী শাহাদাৎ হোসেন এর একমাত্র পুত্র রাহিম হোসেন মল্লিক (১১) কে সৎ মা শ্বাসরোধ করে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, শাহাদৎ হোসেন গত ৫ মাস পুর্বে পৌর সভার সুন্দরপুর গ্রামের আফছার উদ্দিন পাটওয়ারী বাড়ীতে রাবিনা আক্তার প্রিয়াকে দ্বিতীয় বিয়ে করে। রাহিম হোসেন এর দাদা হাজী শহীদ উল্যা জানান, সৎ মা রাবিনা আক্তার প্রিয়া শুক্রবার বিকেলে রাহিমকে মোবাইলে ফোন করে তার বাড়ীতে নিয়ে যায়। শহীদ উল্যা আরও জানান, শনিবার দুপুর ১২ টার দিকে প্রিয়া মোবাইলে তাকে জানান, রাহিম মারা গেছে। খবর পেয়ে দ্রুত তিনি তাদের বাড়ীতে গিয়ে দেখেন খাটের ওপর রাহিমের নিথর দেহ পড়ে রয়েছে। শহীদ উল্যার অভিযোগ সৎ মা প্রিয়া তার নাতী রাহিমকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে। পুলিশ শনিবার বিকেল ৩টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌছে রাহিমের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ সময় পুলিশ সৎ মা প্রিয়াকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। অভিযুক্ত প্রিয়া সাংবাদিকদেরকে জানান, শুক্রবার রাতে খাবার খেয়ে একই কক্ষে ও একই বেডে রাহিম ও সে ঘুমায়। সকালে রাহিমকে ঘুমে রেখে প্রিয়া উঠে যায়। পরে সকাল ১০ টার দিকে রাহিমকে ওই বেডে মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায় বলে প্রিয়া জানান। থানা পুলিশ জানান, লাশের গলায় কালো দাগ রয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে তাকে শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ রাহিমের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেছে। রাহিম চাটখিল আদর্শ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেনীর মেধাবী ছাত্র ছিল। তার শিক্ষক শাহিনুর জানায়, রাহিম মেধাবীও শান্ত ছাত্র ছিল। তার মৃত্যুর খবরে বিদ্যালয়ে শোকের ছায়া নেমে আসে।

Developed by : M. Masud Alam