চাটখিলে স্কুল ছাত্রীকে খুনের দায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

 চাটখিল থানায় স্কুলছাত্রীকে (১৬) ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের হওয়া একটি মামলার পলাতক আসামিকে ১৩ বছর পর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাস কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে বিচারক।

নোয়াখালীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক (জেলা জজ) জয়নাল আবদীন মঙ্গলবার এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম মো. শহীদ (৩০)। ঘটনার পর থেকে সে পলাতক রয়েছে। পাবলিক প্রসিকিউটর মামুনুর রশীদ লাভলু বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৭ সালের ২ মার্চ দশম শ্রেণির স্কুলছাত্রী (১৬) ধর্ষণের শিকার হন। চাটখিল উপজেলার রামনারায়ণপুর গ্রামের মো. শহীদ তাকে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে কৌশলে তার বাড়িতে নিয়ে যায় এবং জোরপূর্বক বিয়ে করার চেষ্টা করে। তাতে ছাত্রী রাজি না হওয়ায় রাতে ছাত্রীকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে শহীদ। ঘটনাটি স্থানীভাবে একাধিকবার মীমাংসার চেষ্টা করা হয়। পরে বিচার না পেয়ে ছাত্রী নিজেই বাদী হয়ে ২৪ জুন চাটখিল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করে।

সূত্র জানায়, একই বছরের ২০ আগস্ট চাটখিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফারুক মৃধা অভিযুক্ত শহীদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৯ (১) ধারায় আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এরপর দীর্ঘ ১৩ বছরের বেশি সময় ধরে আদালতে মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণ ও যুক্তিতর্ক চলে। সব শেষে রায় ঘোষণা করলেন বিচারক।

Developed by : M. Masud Alam