চাটখিলের যুবলীগ নেতা সোনাইমুড়ীতে অস্ত্রসহ আটক, পরিবার বলছে ষড়যন্ত্র

স্টাফ রির্পোটার : সোনাইমুড়ী উপজেলার বাইপাস এলাকায় অভিযান চালিয়ে খালেদ হোসেন জুয়েল (৩৫) নামের চাটখিলের এক যুবলীগ নেতাকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এসময় তার কাছ থেকে একটি পাইপগান ও দুই রাউন্ড কার্টুজ উদ্ধার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে ডিবি।
মঙ্গলবার দুপুরে তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। আটককৃত খালেদ হোসেন জুয়েল চাটখিল উপজেলার রামনারায়নপুর ইউনিয়নের বৈকন্ঠপুর গ্রামের আমির হোসেন মাস্টারের ছেলে ও চাটখিল বাজারের ব্যবসায়ী।
ডিবি পুলিশের তথ্য মতে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে সোনাইমুড়ী বাইপাস এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এসময় ঢাকা থেকে আসা একটি গাড়ী থেকে নামে জুয়েল। তাকে আটক করে তার সাথে থাকা একটি স্কুল ব্যাগে তল্লাশি চালিয়ে একটি পাইপগান ও দুই রাউন্ড কার্টুজ উদ্ধার করা হয়।
নোয়াখালী ডিবি পুলিশের ওসি কামরুজ্জামান শিকদার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, জুয়েলের বিরুদ্ধে ঢাকার একটি থানায় আগের একটি মামলা রয়েছে। এ ঘটনায় অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
জুয়েলের পরিবার তাকে নির্দোষ দাবি করে বলছেন,ঢাকা বরডেম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অসুস্থ শ্বাশুড়ীর চিকিৎসার জন্যে জুয়েল ঢাকা যাওয়ার পথে ছিল। তারা জুয়েলের সাথে অস্ত্রের কোন সম্পর্ক নেই বলেও জোর দাবি করেন।
এদিকে জুয়েল ষড়যন্ত্রের শিকার দাবি করে এবং দলে তার অবদানের কথা তুলে ধরে ও তার মুক্তি দাবি করে ফেসবুক ক্ষোভ জানিয়ে স্টেটাস দিতে দেখা যাচ্ছে চাটখিল উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের ভিবিন্ন নেতাকর্মীদের।

 

Developed by : M. Masud Alam