ড. ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদ – অধ্যাপক (অর্থনীতি), ঢাবি

দেশের প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির অধ্যাপক ড. ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদ। তিনি ১৯৪৮ সালে চাটখিল উপজেলার পৌরসভাধীন ১নং ওয়ার্ড ফতেপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মরহুম আলী আহমেদ চৌধুরী ্ও মাতা সালেহা খাতুন। শিা জীবনে তিনি মাধ্যমিক থেকে শুরু করে স্নাতকোত্তর পর্যায় পর্যন্ত সব পরীায় মেধা তালিকায় শীর্ষস্থান অধিকার করেন এবং প্রায় সব েেত্রই তৎকালীন রেকর্ড সর্বোচ্চ নম্বর লাভ করেন। পরবর্তীতে যুক্তরাজ্যের ক্যামব্রীজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে পি.এইচ.ডি ডিগ্রী লাভ করেন। তাঁর কর্মজীবন শুরু ১৯৬৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতির প্রভাষক হিসেবে। পরবর্তীতে তিনি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালক উচ্চতর সামাজিক বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালক এবং অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়া বিভিন্ন সময়ে বিদেশের বিশ্ববিদ্যালয় ্ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান ভিজিটিং পদে বিশ্ব ব্যাংক আই.এম.এফ ও জাতীয় সংঘের সংস্থাসমূহের গভেষক, পরামর্শক ও প্রশিণ হিসাবে কাজ করেছেন। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গবেষণা উদ্দ্যোগের সঙ্গ্ওে তিনি জড়িত ছিলেন। তার অংসখ্য গভেষণার কাজ দেশ ও বিদেশে প্রকাশিত হয়েছে। উন্নয়ন অর্থনীতির প্রায় সকল েেত্রই তার গভেষণার কাজ বিস্তৃত। বর্তমানে তিনি লন্ডন স্কুল অব ইকনমিকস ও অক্সোফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত রহঃবৎহধঃরড়হধষ এৎড়ঃিয পবহঃবৎ এর কর্মকান্ডের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত। অসংখ্য আন্তর্জাতিক সেমিনার এবং ইয়েল, কেমব্রীজ, কলাম্বিয়া ইত্যাদি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষ বক্তা হিসাবে আমন্ত্রিত হয়েছেন। একাধিক আন্তর্জাতিক গভেষণা জার্নালের উপদেষ্টা বা সম্পাদনা কমিটির তিনি সদস্য। আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম ও পত্রপত্রিকায় তিনি প্রায়শই বাংলাদেশের অর্থনীতির উপর মন্তব্য ও সাাৎকার দিয়েছেন। তিনি বাংলাদেশের উন্নয়ন পরিকল্পনা ও অর্থনীতি প্রণয়নের সঙ্গে নানাভাবে সব সময় জড়িত ছিলেন। বিভিন্ন সময়ে সরকারের বহু টাস্ক ফোর্স ও কমিটির নেতৃত্ব দিয়েছেন। তিনি বিভিন্ন সরকারের আমলে গঠিত ব্যাংক সংস্কার কমিটির চেয়ারম্যান এবং সহস্রাব্দ উন্নয়নের ল বাস্তবায়ন ও মনিটরিং কমিটির চেয়ারম্যান, পঞ্চম ও ষষ্ঠ পাঁচশালা পরিকল্পনার অর্থনীতিবিদ প্যানেলের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি প্রায় দেড় দশক ধরে বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা বোর্ডের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৯৬ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রানালয়ের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি জাতিসংঘের উদ্দ্যোগে গৃহীত “বিশ্ব অর্থনীতিতে আন্তর্জাতিক আর্থিক সংস্থান সমূহের ভুমিকা শীর্ষক একটি গভেষণা উদ্দ্যোগের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তার স্ত্রী সিমীন মাহমুদ একজন উন্ননয় গবেষক।

Developed by : M. Masud Alam